মেসির বার্সা ত্যাগের কথা শুনে কাঁদছিল তার ছেলে

স্পোর্টস ডেস্ক

অনেক নাটকের পর বার্সেলোনাতেই আপাতত থেকে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি। অন্তত আরও এক মৌসুম এই সুপারস্টারকে পাচ্ছে কাতালান ক্লাবটি। কিন্তু মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার খবরটি সহজে নিতে পারেননি তার পরিবার। টিভিতে এমন খবর দেখে তার পরিবারের সদস্যরা ভেঙে পড়েছিল। মেসির বড় ছেলে থিয়াগো তো কান্নায় ভেঙে পড়েছিল।

মেসি শৈশব থেকেই আছেন বার্সেলোনায়। এখান থেকেই তার সুপারস্টার হয়ে ওঠা। স্ত্রী আন্তোনেলা রোকুজ্জো ও তিন পুত্র থিয়াগো, মাতেও ও চিরোকে নিয়ে বার্সেলোনাতে সুখের সংসার মেসির। তিন সন্তান বার্সেলোনার আলো-বাতাসেই বড় হয়ে উঠছে। তবু ক্লাবের ওপর বিরক্ত হয়ে পরিবার নিয়ে ভিন্ন শহরে পাড়ি জমানোর কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে চেয়েছিলেন মেসি। এর প্রভাব পড়ে তার পরিবারের ওপর।

আজ এক সাক্ষাতকারে মেসি বলেছেন, ‘আমার বার্সেলোনা ছাড়ার ইচ্ছের কথাটি স্ত্রী ও বাচ্চাদের জানানোর ঘটনাটি ছিল ভয়ংকর এক নাটকের মতো। পুরো পরিবার কান্না শুরু করে। আমার বাচ্চারা বার্সেলোনা ছাড়তে চাইছিল না। ওরা স্কুলও বদলাতে চাইছিল না। মাতেও এখনো ছোট এবং সে বুঝে না অন্য কোথাও গিয়ে জীবন শুরু করার মানে কী। থিয়াগো তো বড়। সে টিভি থেকে শুনেছে, বুঝেছে এবং এরপর আমার কাছে জানতে চেয়েছে।’

মেসি আরও বলেন, ‘আমি তাকে জানাতে চাইনি যে তাকে এখন নতুন স্কুলে যেতে হতে পারে বা নতুন বন্ধুত্ব করতে হতে পারে। সে কেঁদে কেঁদে আমাকে বলছিল, আমরা না গেলে হয় না? এমন পরিস্থিতি সামাল দেওয়া কঠিন ছিল, খুবই কঠিন। আমি বুঝতে পারছিলাম। আমার সঙ্গেও তাই হচ্ছিল। আমার জন্য সিদ্ধান্তটা নেওয়া কঠিন ছিল। আমার স্ত্রী, তার মনে অনেক কষ্ট নিয়েও সে আমাকে সমর্থন দিয়েছে।’

Facebook Comments
আরো পড়ুন