করোনা পরিস্থিতিতেও দেশের অর্থনীতি ভালো আছে : পরিবেশমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা ভাইরাস সংকটের পরও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো অবস্থানে আছে জানিয়ে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেন, এই মহামারির কারণে অন্য দেশের মতো ক্ষতিগ্রস্ত হলেও দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার কোনো ঘাটতি হয়নি। মহামারীর মধ্যেই বাংলাদেশের বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয় ৪০ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছে। এর আগে বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়ের পরিমাণ ছিল ৩২ বিলিয়ন ডলার। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণে সব প্রতিকূলতা জয় করেও এটা সম্ভব হয়েছে। শনিবার দুপুরে মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে উপজেলার ৩৩টি গৃহহীন পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার পাকা ঘরের চাবি হস্তান্তর, দুর্গাপূজা উপলক্ষে উপজেলার ৬৭টি পূজা মণ্ডপে জিআর চাল, নন-এমপিও ১১টি মাদ্রাসার ৩৯জন শিক্ষক-কর্মচারীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় হতে শুকনো খাবার ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় থেকে ৫জন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়।

পরিবেশমন্ত্রী দৈনিক জার্নাল বাংলাকে জানান, ‘রিজার্ভের এ কৃতিত্ব প্রবাসীদের। করোনার কঠিন সময়ে প্রবাসীরা দেশে অনেক টাকা পাঠিয়েছেন। অনেকে বিদেশ থেকে দেশে চলে এসেছেন। কিন্তু টাকা আসা বন্ধ হয়নি। যার কারণে রেমিটেন্স বেড়েছে।’

মন্ত্রী আরও দৈনিক জার্নাল বাংলাকে জানান, ‘দেশের মানুষের জীবনমান উন্নত করার জন্য কাজ করছে সরকার। গৃহহীনদের ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। কোনো গৃহহীন মানুষ কল্পনাও করেননি সরকার তাদের ঘর করে দেবে। তাদের একটা পাকা ঘর হবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনায় এখন তারা পাকা ঘর পাচ্ছেন। সেই ঘরে তারা শান্তিতে ঘুমাচ্ছেন।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল ইমরান রুহুল ইসলাম। উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার আলা উদ্দিন ও উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলমের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এম এ মোঈদ ফারুক, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মাসুক আহমদ চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাস, উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় চক্রবর্তী ও জেলা পরিষদ সদস্য বদরুল ইসলাম প্রমুখ।

 

Facebook Comments
আরো পড়ুন