মানুষকে ঘরে রাখতে ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মহামারি করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। জনসংখ্যায় বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম দেশ ইন্দোনেশিয়ায়ও ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দেশটি সামাজিক দূরত্ব, সামাজিক বিচ্ছিন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধির উপর জোর দিচ্ছে।

কিন্তু কে শোনে কার কথা! এসব অমান্য করে অনেকেই এদিক-সেদিক ঘুরে বেড়ায়। তাইতো ইন্দোনেশিয়ার জাভা দ্বীপের একটি গ্রামের স্বেচ্ছাসেবকরা মানুষকে ঘরে রাখতে ব্যতিক্রমধর্মী এক উদ্যোগ নিয়েছে। তারা মানুষকে ঘরে রাখতে মাঝে মধ্যেই রাস্তায় ভূতের বেশ ধারণ করে ঘুরে বেড়ায়। স্থানীয় ভাষায় যেটাকে বলে ‘পোকং’ (পিশাচ)।

ইন্দোনেশিয়ার জাভা দ্বীপের এই গ্রামে শতবছরের পুরনো কুসংস্কার রয়েছে পোকংয়ের বিষয়ে। রয়েছে নানান রূপকথার গল্প। বাচ্চারা ছোটবেলা থেকেই এইসব গল্প শুনে বড় হয়। তাদের মধ্যে পোকং এর বিষয়ে আলাদা এই ভীতি সারাজীবনই কাজ করে। আর সেটাকে দারুণভাবে কাজে লাগাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবকরা।

তাইতো পিশাচ সেজে রাতের বেলা তারা মাঝে মধ্যেই টহল দিতে থাকেন এখানে-ওখানে। পোকংয়ের ভয়ে তাই রাস্তায় বের হওয়া থেকে বিরত থাকছে অনেকেই।

এই বেশ ধারণ করে ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছেন তিনজন স্বেচ্ছাসেবক।

অবশ্য ভূতকে ভয় পাই না বললেই ভূতের ভয় দূর হয় না। তেমনি ইন্দোনেশিয়া করোনাভাইরাসকে ভয় পেয়ে এখনো লকডাউন ঘোষণা না করলেও থেমে নেই সংক্রমণ। ইতিমধ্যে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ছাড়িয়েছে (৪৫৫৭)। মারা গেছে ৩৯৯ জন।

 

  • জার্নাল বাংলা/অর্ণব
Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!