দোকানের পাশে মায়ের মৃত্যু, লাশ নিতে আসেনি সন্তানেরা

গাজীপুরের টঙ্গীতে এক অসুস্থ নারী ওষুধ আনতে গিয়ে বাড়ি সংলগ্ন দোকানের পাশে মারা যান। এসময়, মৃত ওই নারী করোনায় আক্রান্ত থাকতে পারেন এমন সন্দেহে তার লাশ ধরেনি সন্তানসহ এলাকাবাসী।

রাস্তার পাশে দীর্ঘ সময় লাশ পরে ছিল বলে জানায় স্থানীয়রা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে টঙ্গীর মোল্লাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

করোনায় আক্রান্ত সন্দেহভাজন ওই নারীর নাম মিনা বেগম (৬০)। তিনি ওই বাড়িতে এক বসবাস করতেন। তার মেয়ে খুলনায় এবং সৎ ছেলে যশোরে ও মেয়ে ঢাকায় বসবাস করেন বলে জানা গেছে। খবর পেয়ে ছেলে-মেয়েরা কেউ লাশ নিতে আসেনি।

খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে ছুটে যান গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, স্থানীয় কাউন্সিলর, থানা পুলিশ ও হাজী কছিমউদ্দিন ফাউন্ডেশনের সদস্যরা। স্বাস্থ্য বিভাগে খবর দেয়া হলে নমুনা সংগ্রহণ করা হয়। পরে ওই রাতেই নারী লাশের গোসল ও বুধবার সকালে টঙ্গীতেই দাফন করা হয়।

টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশের ওসি এমদাদুল হক জানান, তিনি দোকানে গিয়ে দোকানদারকে পেশার মেপে দেয়ার কথা বলে দোকানের সামনে বসে পড়েন। এক পর্যায়ে তার মৃত্যু হয়। তিনি উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিক রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

জার্নাল বাংলা/সাইফুল

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!