মাথা ন্যাড়া হওয়ার ধুম পড়েছে সব বয়সের মানুষের মাঝে

জার্নাল বাংলা ডেস্ক

মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে সাধারণ ছুটি পেয়ে বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার সব বয়সের মানুষের মাঝে মাথা ন্যাড়া হওয়ার ধুম পড়েছে।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশের মানুষ আতঙ্কিত। চারদিকে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এর মধ্যে নন্দীগ্রাম উপজেলার গ্রাম-গঞ্জে মাথা ন্যাড়া হওয়ার ধুম পড়েছে। এখন সবাইকে বাসা-বাড়িতে থাকতে হচ্ছে। আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সরকারি নির্দেশনায় এখন অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো সেলুনও বন্ধ রয়েছে। দীর্ঘদিন সেলুনে যেতে না পারায় মাথায় চুল বেড়ে যাচ্ছে। তাই বাড়িতে বসেই মাথা ন্যাড়া করে ফেলছেন। বিশেষ করে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও যুবকদের মধ্যে এ প্রবণতা বেশি লক্ষ করা গেছে। শুধু ন্যাড়া হয়েই তারা ক্ষ্যান্ত হচ্ছে না। করোনা পরিস্থিতিতে মানুষ যখন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে চোখ রাখেন তখনই মাথা ন্যাড়া হওয়ার নানা ভঙ্গিতে পোস্ট ভেসে আসে চোখের সামনে। প্রতিদিনই উপজেলার কেউ না কেউ ন্যাড়া করে ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করছেন। তবে করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে এমন দৃশ্যে মানুষের মধ্যে কৌতূহলের সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলার শহরকুড়ি গ্রামের শাহাদত আলী বলেন, সরকারের নির্দেশে ঘরবন্দি, সেলুনও বন্ধ, তাই মাথায় চুল বড় হওয়ায় মাথা ন্যাড়া করা হচ্ছে। তার পরিবারের ১২ জন একসঙ্গে মাথা ন্যাড়া করেছেন বলে তিনি জানান।

পৌর শহরের সেলুন মালিক চন্দন কুমার বলেন, অনেকেই তাদের ফোন দিচ্ছেন বাড়িতে গিয়ে চুল কাটিয়ে দেওয়ার জন্য। এতে কেউ সাড়া দিচ্ছেন, কেউ দিচ্ছেন না।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!