ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছানোর দাবি ক্ষেতমজুর সমিতির

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে খেটে খাওয়া অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছানো নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতি।

সংগঠনের সভাপতি ডা. ফজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রেজা এক বিবৃতিতে এই দাবি জানিয়েছেন। তাঁরা ত্রাণ সামগ্রী লুটপাট বন্ধেরও দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষের রুটি-রুজির পথ বন্ধ হয়ে গেছে। একদিকে করোনা আতঙ্ক, অন্যদিকে ক্ষুধার তাড়নায় শ্রমজীবী মানুষ এখন দিশেহারা। মানুষকে ক্ষুধার্ত রেখে লকডাউন, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, ঘরে থাকা-এসব নির্দেশ কার্যকর হবে না। বরং খাদ্য সংকটের কারণে না খেতে পেয়ে অনেক মানুষের মৃত্যু ঘটবে। তাঁরা বলেন, এরইমধ্যে খাবারের দাবিতে অনেক জায়গায় মানুষ রাস্তায় নেমে পড়েছে। বর্তমান অবস্থা চলতে থাকলে দ্রুত পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তাঁরা।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, অসহায় মানুষ বাঁচাতে সরকারের কার্যকর উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে না। এদিকে সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরের চাল চুরির মহোৎসব চলছে। সরকারি দলের নেতাকর্মী-সাঙ্গপাঙ্গরা গরিবের জন্য বরাদ্দ স্বল্পমূল্যের চাল চুরিতে মেতে উঠেছে। এসব লুটপাট বন্ধ করতে হবে। লুটপাটকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

নেতৃবৃন্দ ধান কাটার জন্য হাওরসহ বিভিন্ন অঞ্চলে অন্য অঞ্চল থেকে যেসব ক্ষেতমজুর যাচ্ছেন তাঁদের যাতায়াত, থাকা-খাওয়া-চিকিৎসা-সুরক্ষা ও ন্যায্য মজুরি নিশ্চিত করার দাবি জানান তাঁরা।

জার্নাল বাংলা/অর্ণব

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!