আফ্রিদি-গম্ভীরের বিবাদ চরমে

জার্নাল বাংলা ডেস্ক

মাঠে খেলতে নামলে ক্রিকেটাররা একে অপরকে স্লেজিং করবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু ক্রিকেট ছাড়ার পরও যদি তাদের মধ্যে সেই বাকযুদ্ধ লেগে যায় তাহলে দর্শক-সমর্থকরা সেটাকে নিশ্চয় ভালো ভাবে নেয় না। সম্প্রতি পাকিস্তানের ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি ও ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান গৌতম গম্ভীরের মধ্যে এমনই এক যুদ্ধ লেগে গেছে। একজন আরেকজনকে ছোট করতে বিন্দুমাত্রও সময় নেয়নি।

সম্প্রতি মাঠের বাইরে একে অপরের সমালোচনা করে আলোচনায় এসেছেন পাকিস্তান ও ভারতের এই দুই ক্রিকেটার। অবশ্য শুরুটা করেছেন আফ্রিদি। নিজের লেখা বইয়ে গম্ভীরকে সরাসরি খোঁচা দেন তিনি।

ক্রিকেটে গম্ভীর কিংবদন্তিদের তালিকায় কখনোই পড়েন না বলে মনে করেন ৪০ বছর বয়সী আফ্রিদি। বইটিতে তিনি লিখেছেন, ‘সে (গম্ভীর) ক্রিকেট মহানদের তালিকার ধারে কাছেও নেই। কিন্তু সে নিজেকে ডন ব্র্যাডম্যান ও জেমস বন্ডের মিশ্রণ মনে করে। তাঁর কোন ভালো রেকর্ডই নেই।’

শুধু তাই নয়, ভারতের এই ওপেনারের চরিত্র নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন আফ্রিদি। গম্ভীরকে ব্যক্তিত্বহীন আখ্যা দিয়ে আগুনে যেন ঘি ঢেলে দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক এই টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। আফ্রিদি লিখেছেন, ‘ওর আচরণে সমস্যা আছে। কোন ব্যক্তিত্ব নেই তাঁর।’

আফ্রিদির এই বক্তব্যের পর অবশ্য চুপ থাকেননি গম্ভীরও। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে আফ্রিদিকে ধুয়ে দিয়েছেন তিনি। ভারতের এই সাবেক ব্যাটসম্যান লিখেছেন, ‘যে নিজের বয়সই মনে রাখতে জানে না সে কীভাবে আমার রেকর্ড মনে রাখবে।’

এখানেই ক্ষান্ত দেননি গম্ভীর। তিনি আরো লিখেন, ‘আফ্রিদিকে মনে করিয়ে দিচ্ছি, ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল, ভারত বনাম পাকিস্তান—গম্ভীর ৫৪ বলে ৭৫ রান আর আফ্রিদি ১ বলে ০ রান। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, আমরা সেদিন শিরোপা জিতেছি। আর হ্যাঁ, আমার সব সময় মিথ্যাবাদী, বিশ্বাসঘাতক ও সুযোগসন্ধানীদের সঙ্গে সমস্যা ছিল।’

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!