ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ

জার্নাল বাংলা ডেস্ক

সরকারি খাদ্য সহায়তার দাবিতে রংপুরের পীরগাছায় সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করছে কর্মহীন হতদরিদ্র মানুষ। গত এক সপ্তাহ থেকে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভের ঘটনা ঘটছে। এভাবে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভের ঘটনায় আশ্বাস মিললেও ত্রাণ মিলছে না বলে অভিযোগ ভুক্তভোগিদের।

আজ সোমবার সকালে আবারো উপজেলার কদমতলায় রংপুর-পীরগাছা সড়ক অবরোধ করে নিম্ন আয়ের শত শত মানুষ। তারা খাদ্য সহায়তার দাবিতে সড়কে বসে বিক্ষোভ করে। এ সময় সড়কের দুইপাশে পণ্যবাহী যানবাহন আটকা পড়ে থাকতে দেখা যায়।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে চলমান পরিস্থিতিতে তারা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাদের ঘরে খাবার নেই। ধারদেনা করেও আর চলতে পারছে না। সরকারি ও বেসরকারিভাবে এখন পর্যন্ত কোনো খাদ্যসামগ্রী পায়নি। গত একমাসের বেশি সময় ধরে এ অবস্থা চলছে। প্রায় দুই সপ্তাহ আগে ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি ও ছবি নেয় স্থানীয় ইউপি সদস্যরা। কিন্তু এখনো কোন ত্রাণ কিংবা খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়নি।

এ ছাড়া গত শনিবার পারুল ইউনিয়নের দেউতিতে ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ করা হয়। একই ইউনিয়নের হাউদারপাড় এলাকায় সরকারি ত্রাণ না পেয়ে গত বৃহস্পতিবার প্রায় পাঁচ শতাধিক নারী-পুরুষ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছিলেন। অপরদিকে গত বুধবার উপজেলা নেকমামুদ বাজারে ত্রাণের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছিল।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমীন প্রধান বলেন, এক দিকে ত্রাণ বিতরণ চলছে অপরদিকে তারা আন্দোলন করতেছে। ত্রাণ নিয়ে আন্দোলনের কিছু নেই। পর্যাক্রমে নিম্ন আয়ের সকলকে ত্রাণ দেওয়া হবে

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!