নিরুপায় যুবকের কোয়ারেন্টিন

নিজস্ব প্রতিবেদক

যশোরের অভয়নগরে সামিউল ইসলাম রাব্বি (৩০) নামে ঢাকা ফেরত এক যুবকের কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএম রফিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার রাতে নিরুপায় ওই যুবককে উপজেলার চলিশিয়া ইউনিয়নের গ্রামতলা গ্রামে তাঁর বোনের বাড়িতে ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার ব্যবস্থা করলেন তিনি।

যুবক রাব্বি জানান, ঢাকার একটি গার্মেন্টে চাকরী করতেন। করোনা দুর্যোগের কারণে গার্মেন্টটি বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় এক মাস ঢাকায় মানবেতর জীবন কাটিয়ে গত সোমবার সকালে ঢাকা থেকে অভয়নগরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন। বিভিন্ন যানবাহনের মাধ্যমে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার নওয়াপাড়ায় এসে পৌঁছান। পরে গ্রামতলায় বোনের বাড়িতে যান। এ সময় তাঁকে নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে বিকালে গ্রামবাসী তাকে তাঁর বোনের বাড়ি থেকে অনত্র চলে যেতে বাধ্য করে।

রাব্বি আরো জানায়, বিকালে বোনের বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিরুপায় হয়ে নওয়াপাড়া রেলস্টেশনের বটতলায় বসে ছিলেন। এ সময় উপজেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী ও পুলিশ সদস্যের টহল টিমের নজরে আসেন। ঢাকা থেকে ফিরে আসা ও রেলস্টেশনে বসে থাকার বিষয়টি টহল টিমের প্রধান উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কেএম রফিকুল ইসলামকে জানালে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন তিনি।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএম রফিকুল ইসলাম বলেন, মানবিকতার কথা বিবেচনা করে এবং কোয়ারেন্টিনের নিয়ম মেনে রাতেই রাব্বিকে তার বোনের বাড়িতে থাকার ব্যবস্থা করা হয়। ওই বাড়িটিতে লাল কাপড় টানিয়ে পরিবারের সকল সদস্যকে ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। এছাড়া তাদের খাদ্য সহায়তার ব্যবস্থা করা হয়।

জার্নাল বাংলা/সাবা

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!