লোহাগড়া উপজেলা লকডাউন

নিজস্ব প্রতিবেদক

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর তিনজন ডাক্তারসহ মোট পাঁচজন করোনা পজিটিভ। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শরীফ শাহাবুর রহমান বুধবার (২২ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেন। উপজেলা প্রশাসন বুধবার (২২ এপ্রিল) সমগ্র উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার শরিফুল, ডাক্তার বেলাল, ডা. নাইমাসহ দুই স্টাফের করোনা পজিটিভ। ওই পাঁচজনই আইসোলেশনে। করোনা সন্দেহভাজনদের নমুনা সংগ্রহকালে ওই পাঁচজন আক্রান্ত হন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, লোহাগড়া পৌরসভায় গত ১৩ এপ্রিল প্রথম করোনারোগী শনাক্ত হয়। আক্রান্ত রোগী জয়পুর ইউনিয়নের পারছাতড়া গ্রামের সৈয়দ আশরাফ আলীর ছেলে সৈয়দ সুজন (২৪)। সুজনের করোনা শনাক্তের পর লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকুল কুমার মৈত্র পারছাতড়া, ছাতড়া, নারানদিয়া, জয়পুর পূর্বপাড়া গ্রামকে সম্পূর্ণরূপে লকডাউন ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে দুই বার সুজনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে করোনা নেগেটিভ আসে। বর্তমানে সুজন সুস্থ। ওই চারটি গ্রামে লকডাউন তুলে দেওয়া হয়েছে।

লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকুল কুমার মৈত্র তিনজন ডাক্তারসহ পাঁচজনের করোনা পজিটিভ স্বীকার করে বলেন, বুধবার (২২ এপ্রিল) হাসপাতাল বাদে সমগ্র উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছি।

 

জার্নাল বাংলা/অর্ণব

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!