পিরোজপুরে প্রকাশ্যে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে প্রকাশ্যে দিবালোকে এক কৃষককে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় কৃষকের ছেলে ও ভাইকেও আহত করা হয় । এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ ।

আজ শনিবার দুপুরের দিকে উপজেলা বালিপাড়া জোমাদ্দার হাট সংলগ্ন প্রধান সড়কে কৃষক আ. সালাম জোমাদ্দার(৬০) কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয় । এ সময় প্রতিপক্ষ হামলায় নিহতের ছেলে আল আমিন (৩২) ও ভাই মিজান জোমাদ্দার (৪৬) আহত হয় । এ ঘটনা জড়িত থাকার অভিযোগে ওহিদুজ্জামানকে (৩০) আটক করেছে পুলিশ ।

নিহত কৃষকের ছেলে আল আমিন অভিযোগ করেন, তার বাবা ছালাম জোমাদ্দারের সঙ্গে দীর্ঘ ধরে একই গ্রামের বাবুল জোমাদ্দারে সঙ্গে বাড়ির সিমানা নিয়ে বিরোধ ছিল। শনিবার সকালে আমি ও আমার আব্বা জোমাদ্দার হাটের দিকে যাচ্ছিলাম।

এ সময় হাট সংলগ্ন কালভার্টের কাছে পৌঁছালে বাবুল জোমাদ্দারের নেতৃত্বে সোহরাব, রহমানসহ ১৫ থেকে ২০ জন লোক অতর্কিত হামলা চালায় । তাদের দায়ের কোপে ও লাটির আঘাতে আমার আব্বা গুরুতর আহত হন। আমি ও আমার চাচা আহত হই ।

গুরুতর আহত অবস্থায় আব্বাকে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে দ্রুত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন । অ্যাম্বুলেন্সে উঠানোর সময় আব্বা মারা যান ।

ইন্দুরকানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান জানান, বাড়ির সিমানা নিয়ে ছালাম জোমাদ্দার ও বাবুল জোমাদ্দারের মধ্যে বিরোধ ছিল ।

সকালে প্রথম দফায় তাদের মধ্যে কথার কাটাকাটি হয়। পরে বাবুল জোমাদ্দারের গ্রুপের হামলায় আহত ছালাম জোমাদ্দারকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কিছুক্ষণ পরে চিকিৎসারত অবস্থায় তিনি মারা যায়।

এ ঘটনার ওহিদুজ্জামান (৩০) নামের এক যুবকে আটক করা হয়েছে । অপরাধীদের দ্রুত আটক করে আইনের আওতায় আনার জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।

জার্নাল বাংলা/সাবা

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!