অসহায় মানিকগঞ্জের হকাররা

রাসেল আহমেদ, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড থেকে এক বছর আগে উচ্ছেদকৃত হকার্স মার্কেটের তিন শতাধিক হকার মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে। উচ্ছেদের প্রভাব না কাটতেই করোনা সংকট তাদের চরম অবস্থায় ঠেলে দিয়েছে। আয় রোজগার না থাকায় পরিবার নিয়ে তারা প্রায় অনাহারে দিন কাটাচ্ছে। হকার্স সমিতির পক্ষ থেকে সরকারের কাছে মানবিক ত্রাণ সহায়তার আবেদন করা হয়েছে।

মানিকগঞ্জ হকার্স সমিতির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত বছরের মার্চ মাসে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন হকার্স মার্কেটটি উচ্ছেদ করা হয়। ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক প্রশস্থকরনের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগ তাদের উচ্ছেদ করে। যদিও তারা নিয়ম মেনেই পৌরসভাকে প্রতিটি দোকানের পজিশন ফি হিসাবে দিয়েছিল ২০ হাজার টাকা। নিজেরাই দোকান ঘর নির্মাণ করে নিয়েছিল। এজন্য প্রতিটি দোকান ঘর নির্মাণ বাবাদ খরচ হয়েছিল গড়ে ৪০ হাজার টাকা। মাসিক ভাড়া দিত চারশ টাকা।

হকার্স সমিতির সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, উচ্ছেদের পর মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে ফেরিকরে চা,পান, বিড়ি-সিগারেট, ডিম, চানাচুর, ঝালমুড়ি, বিভিন্ন ধরণের ফল বিক্রি করে জীবন চালাত। কেউ কেউ অস্থায়ীভাবে ভাতের হোটেল, চায়ের দোকান দিয়েছিল। কউ কেউ সবজির দোকানও দিয়েছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউনের ফলে তারা গত প্রায় দেড় মাস ধরে রাস্তায় নামতে পারছেন না। তিনি জানান এ পর্যন্ত তাদের জন্য কোন সাহায্য আসেনি।

জার্নাল বাংলা/সাবা/রাসেল

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!