গণস্বাস্থ্যের কিট পরীক্ষার আপাতত সুযোগ নেই: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) মো. হাবিবুর রহমান খান জানিয়েছেন, বিশ স্বাস্থ্য সংস্থা এখন পর্যন্ত কোনো দেশকেই র‌্যাপিড কিটস পরীক্ষার অনুমোদন দেয়নি।তিনি বলেন, ‘বর্তমান প্রেক্ষাপটে গণস্বাস্থ্যের র‌্যাপিড কিট পরীক্ষার আপতত কোনো সুযোগ নেই।সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মিডিয়া সেল আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

কোভিড-১৯ পরীক্ষার কিটস সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়।

অতিরিক্ত সচিব আরও বলেন, ‘ভবিষ্যতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেলে গণস্বাস্থ্যের কিটস গ্রহণে সরকারের কোনো আপত্তি থাকবে না।’

গণস্বাস্থ্যের কিট গ্রহণ নিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর অভিযোগের বিষয় অতিরিক্ত সচিব বলেন, ‘২৬ এপ্রিল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী কিট পরীক্ষার বিষয় নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ঔষধ প্রশাসনকে যেভাবে দোষারোপ করেছেন, তা মিথ্যা ও উদ্যেশ্যপ্রণোদিত। প্রকৃতপক্ষে গণস্বাস্থ্য তাদের দাবির ক্ষেত্রে কোনোরকম প্রটোকল মানা হয়নি। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র তাদের পর্যাপ্ত প্রস্তুতি না রেখেই ঢালাওভাবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে দোষারোপ করেছে।’

প্রায় একই সঙ্গ অভিমত জানালেন ওষুধ প্রশাসনের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহাবুবুর রহমান। তিনি আরও বলেন, ‘ঔষধ প্রশাসন গণস্বাস্থ্যের কেন্দ্রে সরকারিভাবে বারবার পরিদর্শনে গিয়েছে। সে জন্য গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিনিধিরা সরকারকে একাধিকবার ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতাপত্রও পাঠিয়েছেন। যেগুলো তারিখসহ আমাদের কাছে রক্ষিত আছে। কিন্তু তারা যা মুখে বলেছেন, বাস্তবে সে কাজগুলো তারা করেননি। উল্টো উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন।’

এই সময় আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান।

জার্নাল বাংলা/সাইফুল

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!