ঈশ্বরদীতে পুলিশের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করায় ৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নয়ন, পাবনা প্রতিনিধি

চলমান করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ঈশ্বরদীতে পুলিশের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করার ঘটনায় দুই ব্যবসায়ীসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে দুজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরও ৩৫ জনের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

ঈশ্বরদী থানার এএসআই খায়রুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার রাতে দুজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরও ৩৫ জনের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে এ মামলা করেছি।

তিনি জানান, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ২৭ এপ্রিল সকালে উপজেলার সাহাপুর নতুনহাট মোড়ে হাসেম সুপার মার্কেটের সব ধরনের দোকানপাট খোলা ছিল।

সকাল ১০টার দিকে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির এক নেতাকে সঙ্গে নিয়ে পুলিশ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য, ফার্মেসি ও কাঁচাবাজার ছাড়া বাকি সব ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার নির্দেশ দেয়। এ সময় শান্ত ইসলাম ও জুয়েল রানা নামের দুই দোকানদার পুলিশকে উদ্দেশ্য করে গালাগারের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়।

এর পর ব্যবসায়ীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করেন। ব্যবসায়ীদের এমন আচরণে বাজার থেকে ফিরে যান কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা।

ঈশ্বরদী থানার ওসি বাহাউদ্দীন ফারুকী এ ব্যাপারে বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ঈশ্বরদীতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও ওষুধের দোকান ছাড়া বাকি সব ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে বলা হয়। এতে পুলিশ সদস্যদের ওপর মারমুখী আচরণ করেছেন দুই ব্যবসায়ী। ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এ মামলা করা হয়েছে।

অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ওই মার্কেটের একাধিক ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, পুলিশই তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে। বিনাকারণে দুজনকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ব্যবসায়ীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

জার্নাল বাংলা/অর্ণব/নয়ন

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!