করোনা নির্মূল হবে না, আসবে প্রতি বছর বলেছেন চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীনা বিজ্ঞানীরা বলেছেন যে, নভেল করোনাভাইরাস নির্মূল হবে না। বরং এই প্যাথোজেন ফ্লুর মতো হানা দিতে পারে নিয়মিত। খবর ব্লুমবার্গের।

১৭ বছর আগে আরেকটি করোনাভাইরাস সার্স উধাও হয়ে গেলে কভিড-19 সহসাই হারিয়ে যেতে নাও পারে। কারণ অনেকের ক্ষেত্রে দেখা গেছে যে, তাদের শরীরে জ্বরের মতো সুস্পষ্ট লক্ষণ দেখা যায়নি অথচ তারা আক্রান্ত হয়েছেন।

চীনের একদল ভাইরাল ও মেডিকেল গবেষক বলছেন, এ ধরনের লক্ষণবিহীন বাহকের কারণে করোনাভাইরাস পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। সোমবার বেইজিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তারা।

সার্সের ক্ষেত্রে আক্রান্ত ব্যক্তি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। কিন্তু তাদের কোয়ারেন্টিনে নিলে এই ভাইরাসে বিস্তার রোধ হয়। কিন্তু কভিড-19 এর ক্ষেত্রে এই চিত্রটা ভিন্ন। তাই চীনে করোনা নিয়ন্ত্রণে এলেও প্রতিদিন লক্ষণবিহীন বহু রোগী শনাক্ত করছে দেশটি।

চীনের শীর্ষ মেডিকেল গবেষণা প্রতিষ্ঠান চাইনিজ অ্যাকাডেমি অব মেডিকেল সায়েন্সেসের ইন্সটিটিউট অব প্যাথোজেন বায়োলজির পরিচালক জিন কি বলেছেন, এই মহামারি মানুষের সঙ্গে দীর্ঘদিন থাকতে পারে, এটা মৌসুমি হবে এবং মানুষের শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।

লকডাউন করে বিশ্বের অর্থনীতি স্থবির করে দেয়া হলেও শীর্ষ গবেষক ও বিভিন্ন দেশের সরকার মনে করছে, এই ভাইরাস হয়তো নির্মূল করা যাবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের পরিচালক অ্যান্থনি ফাউচিও গত মাসে বলেছিলেন যে, কভিড-19 এর কারণ সৃষ্টি হওয়া রোগ মৌসুমি রোগ হয়ে দেখা দিতে পারে।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!