৩০ লিটার দেশীয় মদসহ একজন আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ফাঁড়ির দেওছড়া চা বাগানের শ্রমিক কলোনী থেকে উৎপাদিত ৩০ লিটার দেশীয় মদ ও সরঞ্জামাদীসহ এক ব্যক্তিকে আটক করেছ পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টায় চা বাগানের বিরন মৃধা ও বিনোদ মৃধার ঘর থেকে মাদক ও সরঞ্জামাদী উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কমলঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ফাঁড়ির এসআই শাহ আলম ও এএসআই এনামুল হকের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা শমশেরনগরের কানিহাটি চা বাগানের আনন্দ মৃধার দুই পুত্র বিরন মৃধা ও বিনোদ মৃধার ঘরে অভিযান চালায়। এ সময় বিরন মৃধার ঘরের তিনটি চুলায় ও বিনোদ মৃধার ঘরে একটি চুলায় দেশীয় চুলাই ও হাড়িয়া মদ উৎপাদন হতে দেখা যায়। পুলিশ দুটি ঘরের চারটি চুলা থেকে বড় বড় হাড়িবাসন ও কয়েকটি বোতল থেকে ৩০ লিটার মদ উদ্ধার করে। সে সময়ে বেশ কয়েকটি হাড়িবাসন, কিছু সরঞ্জামাদী উদ্ধার করা হয় এবং মদ উৎপাদনের সাথে জড়িত এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। ৩০ লিটার মদের বাজার মূল্য ৬ হাজার টাকা হবে।

চা শ্রমিক লছমন রবিদাস ও রামকুমার রবিদাস বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এরা মদ উৎপাদন ও বিক্রি করে আসছে। সন্ধ্যায় নিজ নিজ ঘরে ২০ টাকা গ্লাস হিসাবে শ্রমিকদের কাছে বিক্রি করে। শ্রমিকরা এভাবে এসে মদ খেয়ে মাতাল হয়ে যায়।

তারা আরো বলেন, এই বিরন মৃধার পরিবারে কারো কাজকর্ম নেই। তাই তারা এ পেশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে চলছেন।

এ অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শাহ আলম। তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ৬ হাজার টাকা মূল্যের ৩০ লিটার মদ ও সরঞ্জামাদী উদ্ধার করা হয়। মদ উৎপাদনের সাথে জড়িত এক ব্যক্তিকেও আটক করা হয়। এ বিষয়ে মামলার দায়ের করা হবে।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!