অবশেষে ক্রিকেটকে স্বীকৃতি দিল রাশিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক

বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট। তাইতো ২০২৮ অলিম্পিকে অন্তর্ভুক্ত করতে উঠে-পড়ে লেগেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল(আইসিসি)। অথচ আশ্চর্যের বিষয়, রাশিয়ায় এত দিন ক্রীড়া ইভেন্ট হিসেবে ক্রিকেটের স্বীকৃতিই ছিল না। অবশেষে ক্রিকেটকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দিল দেশটির ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ক্রিকেট রাশিয়ার সভাপতি অশ্বানী চোপড়া। ইউরোপীয় ক্রিকেট নেটওয়ার্কের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘রাশিয়া ক্রিকেটের জন্য এটা অবিশ্বাস্য এক মাইলফলক। এই সিদ্ধান্ত রাশিয়ায় ক্রিকেট ছড়িয়ে দিতে আমাদের প্রচেষ্টাকে আরও বাড়িয়ে তুলবে।’

জানা গেছে, গত বছর ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের পর রাশিয়ায় ক্রিকেট খেলাকে স্বীকৃতি দেওয়ার প্রস্তাব উঠে। তবে রাশিয়ার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অসম্মতিতে ব্যাপারটা আর সামনে এগোয়নি।

এদিকে এ ব্যাপারে আইসিসির অফিশিয়াল পেজে বলা হয়েছে, ব্রিটিশদের হাত ধরে ১৮৭০ সালে রাশিয়ার ক্রিকেট শুরু হয়। তবে ১৯১৭ সালের রুশ বিপ্লবের পর খেলাটির বিকাশ বাধাগ্রস্ত হয়। তবে বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তার হাওয়া আবারও রাশিয়ায় লাগতে শুরু করেছে। ২০০৪ সালে রাশিয়ার ক্রিকেট বোর্ডের নাম দেওয়া হয় ‘ক্রিকেট রাশিয়া’। আইসিসির সহযোগী সদস্যপদও দেওয়া হয় দেশটিকে। এতোকিছুর পর রাশিয়াতে স্বীকৃতি পেল ক্রিকেট।

বলা হচ্ছে, এতে বড় অবদান ক্রিকেট রাশিয়ার বর্তমান সভাপতি অশ্বানী চোপড়ার। ২০১৩ সালে রাশিয়ান ক্রিকেট ফেডারেশন গঠন করে দেশটিতে ক্রিকেট ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে গেছেন তিনি।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!