আড়াই টন গলদা চিংড়ি ও ২ টন জাটকা জব্দ

মাওয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ি ও উপজেলা মৎস্য অফিসের যৌথ অভিযানে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটে অভিযান চালিয়ে ২ মেট্রিক টন জাটকা ইলিশ ও আড়াই মেট্রিকটন গলদা চিংড়িসহ ২টি ট্রাক জব্দ করা হয়েছে। অবৈধ ও অসৎভাবে মাছ ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার অপরাধে এ সময় আটক করা হয়েছে ৬ ব্যাক্তিকে। বাগেরহাট থেকে ঢাকা যাওয়ার সময় আজ ভোররাতে মাওয়া ফেরিঘাটে ২টি ট্রাক ও দুই ধরনের মাছসহ তাদের আটক করা হয়।

লৌহজং উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মে. ইদ্রিস তালুকদার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার সকালে শিমুলিয়া ঘাটে অভিযান চালায় মাওয়া নৌ-পুলিশের পরিদর্শক সিরাজুল কবিরের নের্তৃত্বে একদল নৌ-পুলিশ। এ সময় আটক করা হয় মাছভর্তি দুটি ট্রাক। এসব ট্রাক থেকে উদ্ধার করা হয় ২ মেট্রিকটন জাটকা ইলিশ ও আড়াই মেট্রিকটন গলদা চিংড়ি।

মাওয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক সিরাজুল কবির বলেন, অসৎ এ মাছ ব্যবসায়ীরা একদিকে যেমন অবৈধভাবে জাটকা ইলিশ ধরে দেশের অর্থনীতির ক্ষতি করছে। তার চেয়েও বড় ক্ষতি করছে চিংড়ি মাছের পেটে জেল জাতীয় পদার্থ ঢুকিয়ে, যা মানবদেহের জন্য ব্যাপক ক্ষতিকর। এতে অসৎ এ ব্যবসায়ীরা আর্থিকভাবে লাভবান হলেও প্রতারিত হচ্ছে ক্রেতা। তাই আটক এ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জেল-জরিমানার ব্যবস্থা করে হবে। আর জব্দকৃত জাটকাগুলো মৎস্য কর্মকর্তার উপস্থিতিতে গরিব-দুঃখী মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেওয়া হয়।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!