আওয়ামী লীগ কর্মীর হাত-পায়ের রগ কর্তন

নিজস্ব প্রতিনিধি

নাটোরের নলডাঙ্গায় জমি নিয়ে বিরোধ এবং আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও তার সমর্থকদের হামলায় নলডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ইউসুব আলী টুটুলককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তার হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয়া হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় টুটুলকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানের রগ কেটে যাওয়ায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ থেকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নলডাঙ্গা উপজেলার ধামনপাড়া স্কুল মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

আহতের স্বজন, গ্রামবাসী ও পুলিশ জানায়, বিপ্রবেলঘরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি মেম্বর এবং ধামনপাড়া গ্রামের অধিবাসী লোকমান হোসেনের সাথে একই গ্রামের ইউসুব আলী টুটুলের জমি ও এলাকায় আধিপত্য নিয়ে বিরোধ ছিল। এই বিরোধের জের ধরে সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ধামনপাড়া স্কুল মাঠে বসা থাকা অবস্থায় লোকমান হোসেনের আত্মীয় আরিফ , জসিম, আসাদুর আমিনুল রহমান সহ ৮/৯ জনের একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে টুটুলের ওপর হামলা চালায় । এসময় টুটুলকে উপুর্যপরি কুপিয়ে তার হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয়। আশঙ্কা জনক অবস্থায় টুটুলকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজে নেয়া হলে তার শরীরের অনেকগুলো রগ কেটে যাওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করা হয়।

এ বিষয়ে নলডাঙ্গা থানার ওসি হুমায়ন কবির বলেন, সংবাদ পেয়ে পুলিশ ধামনপাড়ায় অবস্থান করছে। তবে ঘটনার সাথে জড়িতরা পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!