১২৯ বন্দিকে মুক্তি দিচ্ছে রাজশাহী কারাগার

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের আরও ১২৯ বন্দিকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

শুক্রবার দুপুরে কারা কর্তৃপক্ষ এ নির্দেশ পেয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার গিয়াস উদ্দিন।

এর আগে চলতি মাসের ২ ও ৩ তারিখে দুই দফায় ৯৮ জন বন্দিকে মুক্তি দিয়েছিল রাজশাহী কারাগার।

তারই ধারাবাহিকতায় এবার ১২৯ বন্দিকে মুক্তি দেয়া হচ্ছে জানিয়ে সিনিয়র জেল সুপার গিয়াস উদ্দিন বলেন, তৃতীয় ধাপে ১২৯ কয়েদিকে মুক্তি দিতে দুপুরেই নির্দেশনা পেয়েছি। যাদের জরিমানা নেই তাদের সন্ধ্যায় ছেড়ে দেয়া হবে। আর আগের ৯৮ বন্দিদের যারা জরিমানা পরিশোধ করতে পারেননি তারা আটকে আছেন।

তিনি আরও জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের বিস্তার রোধে কারাগারগুলোতে ভিড় কমাতে সরকার লঘু অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের সাজা মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সে অনুযায়ী প্রথম ধাপে ৩৩, দ্বিতীয় ধাপে ৬৫ এবং তৃতীয় ধাপে ১২৯ জনকে মুক্তির নির্দেশনা পেয়েছি। এই ২২৭ জনের বাইরে আর কাউকে মুক্তি দেয়া হবে কি না সেটা সরকারের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে।

প্রসঙ্গত, রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের ধারণক্ষমতা ১ হাজার ৪৫০ জন। কিন্তু উত্তরাঞ্চলের বৃহৎ এই কারাগারে হাজতি এবং কয়েদি মিলিয়ে বন্দি থাকেন প্রায় সাড়ে তিন হাজার। গাদাগাদি করে কারাগারে থাকতে হয় বন্দিদের। এতে এখানে বন্দিদের সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!