টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’রোহিঙ্গা ইয়াবাকারবারি নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মো. সাকের (২২) নামে এক রোহিঙ্গা ইয়াবাকারবারি নিহত হয়েছেন।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুই লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও আগ্নেয়াস্ত্র অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (১৭ মে) ভোরে মোচনী লবণ মাঠে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। নিহত সাকের বালুখালী নয় নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এইচ ব্লকের বাসিন্দা খাইরুল আমিনের ছেলে।

টেকনাফ-২ এর বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান সাংবাদিকদের জানান, নাফনদী পাড় হয়ে মাদকের একটি চালান মোচনী লবণ মাঠ দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকবে। এমন খবর পেয়ে বিজিবির একটি দল মোচনী ও নয়াপাড়া লবণের মাঠে অবস্থান নেন। কিছুক্ষণ পর এ পয়েন্ট দিয়ে কয়েকজন লোক বস্তা নিয়ে আসতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাদের দাঁড়ানোর জন্য চ্যালেঞ্জ করেন। কিন্তু তারা না থেমে উল্টো বিজিবির সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এতে বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়। পরে বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়েন।

তিনি জানান, একপর্যায়ে গোলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে দুই লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা, একটি ধারালো কিরিচ, একটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র ও দুই রাউন্ড কার্তুজসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনের মরদেহ উদ্ধার করে। পরে তাকে রোহিঙ্গা ইয়াবাকারবারি বলে শনাক্ত করা হয়।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় আহত বিজিবি সদস্যদের উপজেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। আর নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!