স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি না নেয়ায় গেটের সামনেই সন্তান প্রসব

জার্নাল বাংলা ডেস্ক

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেটের সামনে এক নারী সন্তান প্রসব করেছে।

গতকাল সোমবার ঈদের দিন সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি না নেয়ার কয়েক মিনিট পরেই গেটের সামনে রাশেদা বেগম (৫০) নামে ওই নারী এক কন্যা সন্তানের প্রসব করে।

উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের জামুডাঙ্গা (ভাঙা বাঁধের মাথা) গ্রামের বাদশা মিয়ার স্ত্রী রাশেদা বেগম।

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে দামোদরপুর ইউনিয়নের জামুডাঙ্গা গ্রামের বাড়িতে থাকা অবস্থায় রাশেদা বেগমের প্রসব বেদনা ওঠে। পরে তাকে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা করোনাভাইরাসের অজুহাতে রাশেদাকে ভর্তি করে নেননি। এরপর রোগীর স্বজনরা চিকিৎসকদের একাধিকবার অনুরোধ করলেও তারা কর্ণপাত করেননি। নিরুপায় হয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে বের হয়ে আসার গেট সংলগ্ন রাস্তায় স্থানীয় নারীদের সহযোগিতায় রাশেদা কন্যা সন্তান প্রসব করেন।

তবে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসক রিপন কুমার বর্মণ জানান, অধিক বয়সী গর্ভবতীদের প্রসবকালীন সময়ে রক্তক্ষরণ বেশি হয়। এজন্য রাশেদাকে ভর্তি করে নেয়া হয়নি। তাকে অন্যত্র ভর্তির পরামর্শ দেয়া হয়েছিল।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!