ভোলার চরফ্যাশনে করোনার উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসকের মৃত্যু

বিশেষ প্রতিনিধি

ভোলার চরফ্যাশন পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডে করোনার উপসর্গ নিয়ে ৬০ বছর বয়সী এক পল্লী চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় ভোলা সদর হাসপাতালে আনার পথে তার মৃত্যু হয়। পরে বিকেলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোলা পৌর মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়। গত ৩ দিন আগে করোনা সন্দেহে তার নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিভাগ।

স্থানীয়রা জানান, ওই পল্লীচিকিৎসক বেশ কিছু দিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। শনিবার তার অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের সদস্যরা উন্নত চিকিৎসার জন্য চরফ্যাশন থেকে ভোলা সদর হাসাতালের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথে বোরহানউদ্দিনে তার মৃত্যু হয়। পরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তার মৃতদেহ ভোলা পৌর মহাশ্মশানে সৎকার করা হয় বলে জানিয়েছেন পৌর মহাশ্মশান কমিটির সাধারণ সম্পাদক অসিম কুমার সাহা।

এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শোভন কুমার বসাক জানান, করোনা উপসর্গ থাকায় গত ৩ দিন আগে ওই পল্লী চিকিৎসক, তার স্ত্রী ও ছেলের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। নমুনার রিপোর্ট এলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে বলেও জানান তিনি।

ভোলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ভোলা থেকে ১ হাজার ৬৮২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা ও বরিশালের ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্টের ফলাফল এসেছে ১ হাজার ১৯৪ জনের। তার মধ্যে ১ হাজার ১৫১ জনের নমুনার রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেও ৪৩ জনের পজেটিভ আসে।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!