অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করায় সুন্দরবন লঞ্চকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক

পটুয়াখালীতে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের অভিযোগে এমভি সুন্দরবন-৮ লঞ্চকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও লঞ্চের সুপারভাইজার আনোয়ার হোসেনকে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার সন্ধ্যায় র‌্যাব-৮ এর সহযোগিতায় জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত পটুয়াখালী লঞ্চঘাটে অভিযান চালিয়ে এমভি সুন্দরবন-৮ লঞ্চকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও লঞ্চের সুপারভাইজারকে আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহবুবুর রহমান দৈনিক জার্নাল বাংলাকে জানান, অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় সংক্রমণ রোগ প্রতিরোধ আইন লঙ্ঘনের দায়ে এমভি সুন্দরবন লঞ্চের সুপারভাইজার আনোয়ার হোসেনকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। টাকা পরিশোধ না করায় তার বিরুদ্ধে জেল পরোয়ানা প্রস্তুত করা হয়েছে।

এদিকে লঞ্চের সুপারভাইজারকে জরিমানা ও শাস্তি দেয়ার প্রতিবাদে পটুয়াখালী নদী বন্দর থেকে কোনো লঞ্চ আজ ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়নি। এর ফলে লঞ্চে অবস্থান করা যাত্রীরা পড়েছে চরম দুর্ভোগে।

পরে স্থানীয় প্রশাসন ও বিআইডব্লিইটিএ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে দণ্ড বহাল থাকা অবস্থায় চার ঘণ্টা পর রাত পৌনে ১০টার দিকে দোতলা লঞ্চগুলো ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। সন্ধ্যা পৌনে ছয়টার দিকে এসব লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল।

পটুয়াখালী নদীবন্দর কর্মকর্তা ও বিআইডব্লিইটিএর সহকারী পরিচালক খাজা সাদিকুর রহমান জানান, সমস্যার সমাধান হয়েছে। দণ্ড বহাল রেখেই ঢাকাগামী লঞ্চগুলো যাত্রী নিয়ে রাত পৌনে ১০টার দিকে পটুয়াখালী লঞ্চঘাট থেকে ছেড়ে গেছে।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!