এক মাস পর প্রকাশ্যে এলেন পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এক মাসের বেশি সময় পর প্রকাশ্যে এসেছেন। দেশটির জাতীয় দিবস উদযাপনকে তিনি সামনে এলেন। গত ৯ মে সবশেষ দেখা গিয়েছিল তাকে। এরপর পর থেকে তিনি মস্কোর বাইরে তার নিজ বাসভবন থেকে কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। খবর বিবিসির।

প্রকাশ্যে এসেই সংবিধানের একটি বিতর্কিত সংশোধনীকে প্রমোট করা শুরু করেছেন পুতিন। সংবিধানের ওই সংশোধনী অনুযায়ী, আগামী ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে পারবেন তিনি। ৬৭ বছর বয়সী পুতিন গত ২০ বছর ধরে রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট বা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আধিপত্য বিস্তার করে যাচ্ছেন।

শুক্রবার যখন পুতিন জনসম্মুখে আসেন তখন তিনি তার মিত্রদের দ্বারা বেষ্টিত ছিলেন। পরে এক ভাষণে আগামী ১ জুলাই অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সংবিধান সংশোধনের ওপর ভোটাভুটিতে মানুষজনকে উপস্থিত হতে আহ্বান জানিয়েছেন পুতিন। এসময় পুতিন বলেন, তিনি নিশ্চিত যে অধিকাংশ রাশিয়ান সংবিধানের এই সংশোধনীকে সমর্থন করবে।

এদিকে রাশিয়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যার বাড়ার মধ্যেও চলতি সপ্তাহে রাজধানী মস্কোতে লকডাউন শিথিল করেছে কর্তৃপক্ষ। তবে সরকারি সিদ্ধান্ত নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে। কেননা মস্কোর মেয়র সের্গেই সোবইয়ান মানুষজনকে বাসায় থাকার আহ্বান জানিয়েছে। এমনকি ২৪ জুন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বিজয় উদযাপনের দিনও তিনি মানুষজনকে বাসায় থাকতে বলেছেন।

উল্লেখ্য, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত প্রায় ৫ লাখ ১০ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পরই রাশিয়ার অবস্থান। তবে আক্রান্তের সংখ্যা এত বেশি হলেও দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ৭০৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে দেশটির কর্তৃপক্ষ মৃত্যুর পরিমাণ কম দেখাচ্ছে অভিযোগ উঠেছে।

Facebook Comments
আরো পড়ুন
error: Content is protected !!